গ্রীষ্মে ছেলেদের পোশাক স্টাইল সাথে ছেলেদের ফ্যাশন ও শপিং

ছেলেদের ফ্যাশন এর জন্য প্রয়োজন মানানসই পোশাক। ছেলেদের পোশাক নির্বাচনের ক্ষেত্রে সময়, ফ্যাশন চিন্তা করে পোশাক নির্বাচন করতে হয়। এই গরমে আপনি ফরমালি ব্যবহার করতে পারেন ছেলেদের টি-শার্ট ও ছেলেদের প্যান্ট। এছাড়াও এর সাথে মানানসই জুতা এবং সানগ্লাস ব্যবহার করতে পারেন।

শুরু হয়েছে গ্রীষ্ম ঋতু। দ্রুত বাড়তে শুরু করবে তাপমাত্রা। তবে ফ্যাশনতো আর থেমে থাকতে পারেনা! তাই জেনে নিন আপনার পোশাক কেমন হলে স্টাইলের পাশাপাশি আরামও পাবেন। এই গরমে আবার আপনার রুচি ও লাইফ স্টাইলও  হবে সাবলীল সুন্দর।

ছেলেদের টি শার্টঃ 

ছেলেদের প্যান্ট:

প্রথম পোশাকটির অর্ডার করুন এখানে-

অথবা ঘুরে আসুন সাদমার্ট এর অনলাইন শপেঃ ছেলেদের পোশাক নির্বাচন

http://www.shadmart.com/products/589996227456.html

২য় প্যান্টটির অর্ডার করুন এখানে-

 

সভ্যতার সাথে পোশাকের সম্পর্ক যে অবিচ্ছেদ্য তা বলার অপেক্ষা রাখে না। মানুষের ব্যক্তিত্ব ও রুচিশীলতা প্রকাশের অন্যতম প্রধান মাধ্যম হলো তার পোশাক। পোশাক নির্বাচনের জন্য উপলক্ষ্য  হল প্রথম কারণ ও তা অনেক বেশী গুরুত্বপূর্ণ।

উপলক্ষ্য এবং পরিবেশের সঙ্গে মানানসই এমন মেজাজের পোশাক নির্বাচনই আপনার রুচির পরিচয়।  যেমন বিয়ে কিংবা পারিবারিক অনুষ্ঠানে যে ধরনের পোশাক মানানসই,  ডিজে শো, কনসার্ট, পার্টিতে সেই ধরনের পোশাক বেমানান -তাই না।আবার অফিস টাইমে যতটা পরিপাটি থাকা প্রয়োজন, ভ্রমণের সময় ততটা পরিপাটি না হয়ে একটু স্বাচ্ছন্দ্যকর পোশাক বেছে নেওয়াই উত্তম।

প্রথমেই খেয়াল  রাখতে হবে পোশাকের জমিন, রং, আকার, আবহাওয়ার দিকটি এবং তারপরই পরিধানকারীর বয়স, গায়ের রং, আকার ও পেশা ইত্যাদি বিষয়ে।

আবার অফিশিয়াল এই ড্রেসটি দেখুন সাদমার্ট – এ ঃ

পোশাকটির অর্ডার করুন এখানেঃ

http://www.shadmart.com/products/571163152533.html

তবে পোশাকের রং নির্বাচন ব্যক্তির ব্যক্তিত্বের ওপর অনেকখানি প্রভাব বিস্তার করে। পরিধানকারীকে কোন রঙের পোশাকে সুখী ও উত্ফুল্ন দেখায় আবার কোন রঙের পোশাকে বিমর্ষ দেখায় তাও পরিধানকারীই ভাল বুঝবেন।  এক্ষেত্রে মোটা ছেলেদের হালকা রঙের পোশাক পরিধান করা উচিত। আর যারা মোটা এবং খাটো তাদের বড় প্রিন্টের পোশাক না পরাই ভালো। তাদের খাড়া রেখাযুক্ত পোশাক পরিধান করলে লম্বা লাগবে।  আবার ধরুন যারা একটু হালকা পাতলা এবং লম্বা তাদের বড় বড় প্রিন্টের পোশাক পরলে ভালো মানাবে।

আবার উৎসব কিন্তু আপনার পোশাক নির্বাচনে একটি বিশালভুমিকা রাখে । যেমন – বিশেষ কিছু অনুভূতির প্রকাশ ঘটাতেও আমরা পোশাকের সাহায্য নিতে পারি। ২১ ফেব্রুয়ারি উপলক্ষে পোশাকে থাকতে পারে বর্ণমালার আলপনা, স্বাধীনতা এবং বিজয় দিবসের জন্য পোশাকে দেওয়া যায় রঙ আর ডিজাইনের ভিন্ন আমেজ।

ছেলেদের টি শার্ট এর ডিজাইন 2017: টি-শার্ট কালেকশন

আবার এই গরমে বয়সভেদে তরুণ বা যুবক সবারই প্রথম পছন্দ আরামের টি-শার্ট। গরমে ফ্যাশনেবল এ টি-শার্টই বা পোলো টি-শার্টই সবার কাছে জনপ্রিয়। নকশার বৈচিত্র্য আর কাপড়ের কোমলতা ও সহজলভ্যতার কারণে এর জনপ্রিয়তা অনেক বেশি। আমাদের দেশের গরমের তীব্রতায় হালকা পোশাক ছাড়া বাইরে বের হওয়া প্রায় অসম্ভব।

আর তাই ঘরে-বাইরে টি-শার্টে তারুণ্যের আগ্রহ অনেক বেশ। কলেজ, ভার্সিটি বা এমনকি মাঝে মাঝে অফিসেও আজকাল সব পুরুষরাই ফ্যাশনের অন্যতম অনুষঙ্গ হিসেবে বেছে নিচ্ছেন টি-শার্ট।

বিগত কয়েক বছরে ছেলেদের টি শার্ট ব্যবহারে তুমুল পরিবর্তন হয়েছে। প্রথমে এটি আন্ডারগার্মেন্ট হিসেবে শার্টের নিচে ব্যবহার হলেও এটি এখন মূল কাপড়ের চেহারা পেয়েছে। এর আরামদায়ক বৈশিষ্ট্য, জনপ্রিয়তা এবং চাহিদা আজকের টি-শার্টের চেহারা দিয়েছে। আরামের পাশাপাশি ফ্যাশনে বৈচিত্র্য আনতে টি-শার্ট বা পোলো টি-শার্ট এর  নকশা ও কাপড়ে এসেছে বৈচিত্র্য। টি-শার্টের কাপড় সম্পূর্ণ সুতি হলেই আপনি এই গরমে আরাম পাবেন আর ওয়াশ করাও সহজ ।

হালকা রঙের সুতার নিটেড টি-শার্ট বা পোলো টি-শার্ট বেছে নিতে পারেন গরমে আরামের জন্য।  সিনথেটিক কাপড় এর টি-শার্ট বা পোলো টি-শার্ট কিন্তু গরমে আপনার শরীরে ঘাম তৈরি করবে যা অস্বস্তিকর।  ১১০ থেকে ১৫০ জিএসএমের নিটেড শার্টই হবে এই গরমে সবচেয়ে ভাল। এতে সহজে বাতাস চলাচল করতে পারে ফলে চলাফেরায় ক্লান্তি আসে না।

ছেলেদের শার্ট এর ডিজাইন: শার্ট ডিজাইন  

আসছে গরমে ছেলেদের পোশাকের ক্ষেত্রে সকলের পছন্দ কোমল ও আরামদায়ক পোশাক হয়ে উঠবে এই টি-শার্ট বা পোলো টি-শার্ট।  রং বাছাইয়ের ক্ষেত্রে যত্নবান হন কারণ  অতিরিক্ত তাপ শোষণ করে যেসব রঙ  তা না কেনাই ভাল। তাই সাদা, নীল, ছাই, ঘন নীল, সবুজ, মেরুন, হলুদ, হালকা ফিরোজা, গোলাপি, লালচে ইত্যাদি রঙের টি-শার্ট অথবা পোলো শার্ট  আপনি সহজেই অনলাইন শপ সাদমার্ট  থেকে কিনে নিতে পারেন ।

তাই ট্রেন্ডি ওয়ার্ল্ডের ছেলেরা গরমের ট্রেন্ড হিসেবে বেছে নিতে পারেন ঢিলেঢালা কার্গো বা থ্রি-কোয়ার্টার এবং সাথে হাফ হাতা শার্ট বা টিশার্ট। ব্লক, বাটিক বা টাইডাই করা সুতির হাফ হাতা শার্ট চলতে পারে ফ্যাশনের ট্রেন্ডে।

যারা চাকরী করেন এই গরমে পোশাকে  তাদের পোশাক হতে হবে এমন যাতে আপনিও স্বাচ্ছন্দে থাকেন আবার ক্লায়েন্টও অস্বস্তিবোধ না করে। পরতে পারেন হাফহাতা সুতি বা ব্লকের শার্ট, পোলো শার্ট অথবা ফতুয়ার সাথে স্ট্রেইট কাটের জিন্স। কিন্তু, অফিস যদি আপনার এই ক্যাজুয়াল লুক মানতে না চায়, তাহলে সেই ফরমাল পোশাকই পড়ুন। তবে খেয়াল রাখুন শার্টের কাটিং যেন আপনার জন্য আরামদায়ক হয়।

প্যান্টের বেলায় বেছে নিতে পারেন গাঢ় ধূসর, হালকা ধূসর, অফহোয়াইট, বাদামি বা বিস্কিট রং। এই রঙের প্যান্টগুলো পরতে পারবেন যেকোনো শার্টের সাথে। শার্ট পরতে পারেন একরঙা বা সুতির চেক।

পোশাক নির্বাচনে তিনটি বিবেচনা অবশ্যই মাথায় রাখবেন – 

১। পোশাক তার উদ্দেশ্য পূরণ করছে কি না মানে দেহের আব্রু বজায় রাখা এবং আবহাওয়ার প্রভাব থেকে রক্ষা  করা।

২। যিনি পড়ছেন তার কাছে এটি দৃষ্টিনন্দন কি না

৩। তিনি পড়ে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করছেন কি না।

অফিসের বেলায় পোশাক নির্বাচনের ক্ষেত্রে পেশা, রুচি, বয়স, অফিসের পরিবেশ, পদমর্যাদা, কোথায় কাজ করছেন, সেখানকার নিয়মনীতি কি তা বুঝে পোশাক নির্বাচন করুন। এমন পোশাক পরুন, তা যেন আপনার সম্পর্কে কর্তৃপক্ষকে প্রফেশনাল, বিচক্ষণ ও রুচিশীলতার পরিচয় দেয়।

দেখুন জুতা আর প্যান্টের কি অপূর্ব কম্বিনেশান-

জুতার জন্য অর্ডার করুন এখানে-

অথবা ঘুরে আসুন সাদমার্ট এর অনলাইন শপে-  http://www.shadmart.com/products/571785429603.html

অফিশিয়াল লোফার জুতা দেখুন এখানে-

ছেলেদের পোশাক নির্বাচনে আরও কিছু টিপসঃ 

অফিসে অতি উজ্জ্বল, চাকচিক্যময় কোনো পোশাক পরা উচিত নয়। শালীনতা বজায় রেখে পোশাক নির্বাচন করা উচিত। যেসব জুতা পরলে হাঁটার সময় খুব শব্দ হয়, সেসব জুতা এড়িয়ে চলা উচিত।

প্রতিষ্ঠানের ধরন, প্রচলিত সংস্কৃতি ও অন্য সহকর্মীদের সঙ্গে তাল মিলিয়ে দৃষ্টিনন্দন পোশাক নির্বাচন করা উচিত। অফিসে হাফহাতা শার্ট, জিন্সের প্যান্ট ও স্যান্ডেল এড়িয়ে চলা ভালো। স্যান্ডেল যদি একান্ত পরতেই হয় তাহলে যতটা সম্ভব পা ঢাকা থাকে এমন স্যান্ডেল পরা উচিত।

উগ্র রং বাদ দিয়ে সাদা, নীল, সবুজ, কালো, ধূসর এবং এই রঙগুলোর শেড দিয়ে শার্ট পরুন। সাথে কালো, নেভি ব্লু, বাদামি, ধূসর এবং এই ধরনের রঙের প্যান্ট পরুন। চটজলদি দরকার পড়লে কোট-টাই যোগ করে জরুরি সময়ে তৈরি হয়ে যাওয়া যায়।

পোশাক দামি নয় পরিপাটি হওয়া চাই।  যে পোশাকটি আপনি পরছেন তা হওয়া চাই পরিচ্ছন্ন ও মার্জিত।

খুব গরমে পড়তে পারেন হাফ হাতা টি-শার্ট বা শার্ট। সাথে জিন্স। তবে খেয়াল রাখবেন সেগুলো যেনো ছেড়া ফাটা না হয়।

শীতে ফুলহাতা শার্ট বা টি-শার্ট। ফুলহাতা শার্ট এর সাথে সাধারণ প্যান্টই বেশি মানানসই।  শীতে জ্যাকেট কেনার সময়ও নিজের ব্যাক্তিত্বের সাথে যায় এমন জ্যকেট বা শীতের পোশাক কিনুন।

উৎসবে পাঞ্জবি  সবচেয়ে মানানসই। পাঞ্জাবির সাথে পড়তে পারেন জিন্স, সাধারণ পাজামা, ধুপিয়ান পাজামা বা চুরিদার।

তবে পোশাক এর পাশাপাশি আরও কিছু ব্যাপারে নজর দেয়া জরুরী। ছেলেরাও বেশ ফ্যাশন সচেতন হয়ে উঠেছেন আজকাল। একটু বুদ্ধি খাটিয়ে হাতের কাছে পাওয়া নানা জিনিস এবং কম খরচেও অনেক ফ্যাশনেবল হয়ে ওঠা যায়। তাই পয়সা খরচ করে নয় মাথা খাটিয়ে ফ্যাশনেবল হয়ে উঠুন।

ঘুরে আসুন সাদমার্ট এর অনলাইন শপে

http://www.shadmart.com/products/67334659675.html

নিয়মিত ঘড়ি, সানগ্লাস, রুমাল ইত্যাদি ব্যবহার করুন। সাথে রাখুন স্টাইলিশ মানিব্যাগ। যারা কর্মজীবী মানুষ তারা সাথে রাখতে পারেন ভালো, মানানসই এবং সুন্দর ডিজাইনের অফিসব্যাগ।

ব্যাগের অর্ডার করতে ক্লিক করুন-

অথবা ঘুরে আসুন সাদমার্ট এর অনলাইন শপে

http://www.shadmart.com/products/68430924714.html

অথবা ঘুরে আসুন সাদমার্ট এর অনলাইন শপে

http://www.shadmart.com/products/73267647109.html

ঘড়ির জন্য আমাদের শপ এ ক্লিক করুন-

অথবা ঘুরে আসুন সাদমার্ট এর অনলাইন শপে

http://www.shadmart.com/products/570924507425.html

২য় ঘড়ির জন্য আমাদের শপের পেজ-

অথবা ঘুরে আসুন সাদমার্ট এর অনলাইন শপে

http://www.shadmart.com/products/582448939045.html

সানগ্লাসটির জন্য ক্লিক করুন এখানে

অথবা ঘুরে আসুন সাদমার্ট এর অনলাইন শপে

http://www.shadmart.com/products/60567621218.html

ছেলেদের ফ্যাশন এর কিছু টিপস ঃ 

–  জুতোর দিকে অবশ্যই নজর দিন। প্রবাদ আছে  একজন মানুষকে চেনা যায় তার জুতো দিয়ে। জুতো সব সময় পরিষ্কার রাখুন। একই স্টাইল বেশীদিন ধারণ করবেন না। মাঝে মাঝে স্টাইল পরিবর্তন করুন।

চুলের কাটের ব্যাপারে সতর্ক হোন। আপনাকে যে চুলের কাটে মানায় সেই ধরণের কাট দিন চুলে একটু পয়সা খরচ করে হলেও। একটি মানানসই চুলের কাট আপনাকে অনেকাংশে ফ্যাশনেবল করে তুলবে।

–  চুলের পাশাপাশি দাঁড়ির দিকেও নজর করবেন।  আপনার মুখে যদি দাঁড়ি গোঁফ মানায়, তবে সেই অনুযায়ী দাঁড়ি গোঁফ রাখুন। এতে করে আপনি হয়ে উঠতে পারেন ফ্যাশনেবল।

ছেলেরা যেহেতু বেশিরভাগ সময় ঘরের বাইরেই কাটান তাই অবশ্যই লক্ষ্য রাখবেন নিজের পারফিউমের দিকে। বাসা থেকে বেরুনোর সময় বডি স্প্রে বা বডি রোল অন অথবা পারফিউম লাগাতে ভুলবেন না।

অনলাইনে shadmart থেকে ছেলেদের সব ধরনের টি শার্ট কিনুন;

মেনজ স্লিম ফিট কটন ফুল স্লিভ শার্ট, অনলাইনে www.shadmart.com থেকে ছেলেদের সর্বাধুনিক , শার্ট, টি শার্ট, ঘড়ি, জিন্স, জুতো, বেল্ট ও অন্যান্য পণ্য কিনুন।