ব্যস্ততা কিংবা শপিং এর ঝামেলার জন্য প্রিয়জনের বিশেষ দিনে কোনকিছু গিফট করতে পারছেন না? শাদমার্ট নিয়ে এলো আপনার জন্য ই-গিফট কার্ড!

কেন শাদমার্ট ই-গিফট কার্ড গিফট করবেন?

১। গিফট কার্ড রয়েছে যথাক্রমে ১০০০, ২০০০, ৫০০০ এবং ১০০০০ টাকার। আপনি চাইলে যেকোনো একটি পারচেজ করে গিফট করতে পারেন আপনার প্রিয়জনকে!

 

 

২। আপনার প্রিয়জন যতদূর কিংবা বাংলাদেশের যে প্রান্তেই থাকুক না কেন  আপনি যেকোনো সময়ে যেকোনো মুহূর্তে প্রিয়জনকে গিফট করতে পারছেন।


৩। নেই কোন ডেলিভারি কিংবা অপেক্ষার ঝামেলা।

 

৪। আপনার সাধারন কোনো গিফট হয়তো প্রিয়জনের পছন্দ নাও হতে পারে। আপনি চাইলে গিফট কার্ড গিফট করে দিতে পারেন। আপনার প্রিয়জন গিফট কার্ডের টাকার সমপরিমাণের মধ্যে শাদমার্টের যেকোনো কিছু কিনতে পারছেন!  

কিভাবে গিফট কার্ড অর্ডার করবেন?

গিফট কার্ড অর্ডার করতে প্রথমে গিফট কার্ডের পেজে যেতে হবে।  ধরুন, আপনি ২০০০ টাকার গিফট কার্ড কিনতে চাচ্ছেন। ২০০০ টাকার গিফট কার্ডটির পেজ থেকে  “BUY NOW” বাটনটিতে ক্লিক করুন।

 

 

চেকআউট পেজ থেকে যেকোনো একটি পেমেন্ট গেটওয়ে দিয়ে পেমেন্ট করুন। গিফট কার্ডটি পেতে অবশ্যই পুরো টাকার পরিমাণটি পেমেন্ট করতে হবে।

 

পেমেন্ট করা সম্পন্ন হলে আপনার ইমেইল এড্রেসে গিফট কার্ডটি কোডসহ চলে যাবে। কার্ডটি আপনার প্রিয়জনকে ফেসবুক মেসেঞ্জার কিংবা ইনবক্স করে দিলেই তিনি কার্ডের কোডটি ব্যবহার করে যেকোনো সময় পারচেজ করতে পারবেন।

কিভাবে ই-গিফট কার্ড ব্যবহার করবেন

প্রথমে আপনার পছন্দের প্রোডাক্টটি বাছাই করুন।  সাইজ, এবং কালার সিলেক্ট করুন। ADD TO CART বাটনটিতে ক্লিক করুন।  

চেকআউট পেজে প্রোডাক্টের নিচে থাকা কুপন কোড/গিফট কার্ডের কোড দেওয়ার অপশন পাচ্ছেন । খালি জায়গায় আপনার গিফট কার্ডের কুপন কোডটি ব্যবহার করুন।  

প্রোডাক্টের দাম যদি গিফট কার্ড থেকে কম হয় সেক্ষেত্রে আপনার ওয়ালেটে অবশিষ্ট টাকা জমা হয়ে থাকবে। পরবর্তী পারচেজে এই টাকাটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে যুক্ত হয়ে যাবে।

অথবা প্রোডাক্টের দাম যদি  গিফট কার্ড থেকে বেশি হয় সেক্ষেত্রে অতিরিক্ত টাকা পেমেন্ট করে অর্ডার করতে হবে।

প্রোডাক্ট ক্রয়সংক্রান্ত অথবা যেকোনো তথ্য জানতে ক্লিক ইনবক্স করুন আমাদের ফেসবুক পেজে, অথবা যোগাযোগ করুন আমাদের ওয়েবসাইটের চ্যাটবক্সে অথবা কল করুন ০৯৬৭৮ ২২২ ৩৩৩ এই নাম্বারে!